পাঁচ বছর আগে চা ওয়ালা সেজে মানুষকে ধোঁকা দিয়েছিল এখন চৌকিদার সেজে মানুষকে বোকা বানাতে চাইছে । গোয়ালতোড়ে মোদিকে আক্রমণ মমতার। রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুরের গোয়ালতোড় এ ঝাড়গ্রাম লোকসভার প্রার্থী বীরবাহা সোরেন এর সমর্থনে আয়োজিত জনসভায় কেন্দ্র সরকারকে একহাত নিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন বিজেপিকে শুধুমাত্র ভোটের সময় দেখা যায় আর সারা বছর দাঙ্গা লাগায়। পাঁচ বছর আগে নরেন্দ্র মোদি চাওয়ালা সেজে মানুষকে ধোঁকা দিয়েছিল। আর এখন চৌকিদার সেজে মানুষের কাছে ভোট চাইছে।বিজেপির ভোট চাওয়ার কোনো অধিকার নেই। কারণ নরেন্দ্র মোদি পাঁচ বছর আগে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তার একটুও রাখতে পারেনি বলে অভিযোগ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।নরেন্দ্র মোদী বলেছিল বছরে ২ কোটি চাকরি দেবে কিন্তু নোট বাতিলের পরে তিন কোটি চাকরি হারা হয়েছেন ভারতবর্ষের মানুষ।নোট বাতিলের সময় ব্যাংকের লাইনে দাঁড়িয়ে ১০০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২০১৯ সালে কেন্দ্রে বিজেপি সরকার আর ফিরবে না বলেও এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দৃঢ়কন্ঠে বলেন। এদিন তিনি রাজ্য সরকারের সাফল্যের খতিয়ানও গোয়ালতোড় এর মানুষের সামনে তুলে ধরেন। তিনি বলেন এখান সব মেয়েদের কন্যাশ্রী দেওয়া হয়। মায়েরা মাতৃত্ব কালীন ছুটি পান ৭৩১ দিন। যারা চুক্তিভিত্তিক সরকারি কর্মী তাদের ৬০ বছর করা হয়েছে। তিনি বলেন ফনির দাপটে রাজ্যে পাঁচ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৩০০০০ বাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রাজ্য সরকার সেই সমস্ত বাড়িগুলি নির্মাণ করে দিবে বলেও এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোয়ালতোড় জনসভায় জনতাকে আশ্বাস দেন। এদিনের সভায় উপস্থিত ছিলেন শালবনির বিধায়ক শ্রীকান্ত মাহাতো, জেলা পরিষদের কর্মাদক্ষ নির্মল ঘোষ, গড়বেতার বিধায়ক আশীষ চক্রবর্তী সহ জেলার তৃণমূল নেতারা। উল্লেখ্য গত বছর পঞ্চায়েত নির্বাচনে এই গোয়ালতোড় ব্লকে তৃণমূল কংগ্রেস তুলনামূলক খারাপ ফল করে । সেই ক্ষত মেরামত করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এ দিন বলতে শোনা যায় কিছু মানুষকে ভুল বুঝে হয়তো আপনারা বিজেপিকে ভোট দিয়েছিলেন । কিন্তু এইবার আর সেই ভুল করবেন না। পাশাপাশি এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঝাড়গ্রাম লোকসভা তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বীর বাহা সোরেন কে ৪ নম্বর বোতাম টিপে নির্বাচিত করার আহ্বান জানান। পঞ্চায়েত নির্বাচনে কিছুটা খারাপ ফলের পর গোয়ালতোড়ে মুখ্যমন্ত্রীর জনসভায় মানুষের ভিড় দেখে উচ্ছ্বসিত জেলা তৃণমূলের নেতারা। এই সভার অাগে দাঁতনে মানস ভূঁইঞার সমর্থনে একটি জনসভা করেন মুখ্যমন্ত্রী। দাঁতনের সভায় উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র, জেলা সভাপতি অজিত মাইতি, রমা গিরি প্রমুখ। দাঁতনের সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন বিজেপি বাদ দিয়ে বাংলায় এবার অন্যান্য দলকে নিয়ে সরকার গড়বে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here