৩০০ বছরের প্রাচীন ঘাটালের গঙ্গা পূজা। ঘাটাল শিলাবতী নদীর পশ্চিম পাড়ে প্রাচীন ঘাটটি গঙ্গা ঘাট নামেই পরিচিত। প্রায় ৩১৫ বছর আগে এখানে গঙ্গা পূজা শুরু হয় আর তখন থেকেই এই ঘাটটির নাম দেওয়া হয় গঙ্গা ঘাট। জানা যায় সেই সময় ঘাটালের স্থানীয় ব্যবসায়ীরা এই পূজো শুরু করে। ১৮৬৯ সালে ঘাটাল পৌরসভা স্থাপিত হওয়ার পর এই পূজো পৌরসভার কর্মচারীবৃন্দ পরিচালনা করে। আজও ঘাটাল পৌর কর্মচারীরা ঘটা করেই এই পূজো করে আসছেন।সমস্ত রকম সহযোগিতা করে ঘাটাল পৌরসভা। প্রায় রাত্রি ৩ টা থেকে শুরু হয় পূণ্যার্থীদের মকর স্নান। স্নান সেরে পূজো দিয়ে বাড়ি ফেরন পূণ্যার্থীরা। পূজো উপলক্ষ্যে নদী ঘাট থেকে মেলা বসতে দেখা যায়। ঘাটের পাশেই বেতের তৈরী বিভিন্ন জিনিস ( ঝুড়ি,কুলো,চুবড়ি)ও লোহার সরঞ্জাম( বটি,কাটারি) নিয়ে বসতে দেখা যায় বিক্রেতাদের। আজকের দিনে জমজমাট থাকে ঘাটাল। ঘাটালের পৌরপ্রধান বিভাস ঘোষ বলেন প্রাচীন এই গঙ্গা পূজো ঘাটালের এক ঐতিহ্য। এই ঐতিহ্য ধরে রাখতে যথা সাধ্য চেষ্টা করে ঘাটাল পৌরসভা। ঘাটটি সংস্কার করা ছিলনা পৌরসভা থেকে সেটি করা হয়েছে। এই মেলা উপলক্ষ্যে ঘাটের পাশাপাশি এলাকা পরিস্কার করা হয়। পূণ্যার্থীদের সুবিধার জন্য সমস্ত রকম ব্যবস্থা গ্রহন করে ঘাটাল পৌরসভা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here