পাঁশকুড়া খড়গপুর রেলের অারপিএফ এর সিআইবির (ক্রাইমবাঞ্চ) টিম বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে বেঅাইনি ভাবে রেলের তৎকাল টিকিট, প্রিমিয়ার তৎকাল টিকিট ও অন্যান্য ই টিকিট বেঅাইনি পথে কাটার অভিযোগে ঘাটাল থানার ইড়পালা থেকে এক যুবককে গ্রেপ্তার করল। যুবকের নাম মিঠুন মাঝি, বয়স ২১। ঐ যুবক ইড়পালাতে রাজদীপ ট্রাভেলস এবং মোবাইল সেন্টার নামে একটি দোকান থেকেই বেঅাইনি ই টিকিটের কারবার চালাত বলে অভিযোগ। রেলের অারপিএফ ক্রাইম ব্রাঞ্চ অভিযান চালিয়ে যে সমস্ত জিনিস গুলি সিজ করেছে সেগুলি হল
1. ৮ টি লাইভ ই টিকিট মূল্য ২১,৫৪৮ টাকা।
2. ১ টি পিআরএস লাইভ টিকিট মূল্য ১০০ টাকা এবং ১ টি পিআরএস কাউন্টার বাতিল টিকেট।
3. ২৬২ টি নং এর পিএনআরগুলির অনুলিপি প্রিন্টের ব্যক্তিগত আইডিগুলির মাধ্যমে প্রাপ্ত তাৎক্ষনিক টিকিট মূল্য Rs। ৬২২২৮১ টাকা,
4. নগদ টাকা Rs.১৩৩৫০ টাকা।
৫. ডেল কোম্পানির ২ টি ল্যাপটপ।
৬. ১ টি মনিটর, CPU সঙ্গে কম্পিউটার।
7.১ টও ইপসন প্রিন্টার
8. ২ টি মোবাইল ফোন,
9. ১০০ নকল ব্যক্তিগত ব্যবহারকারী আইডি।
১০ . ৭ টি ব্যাংক একাউন্টস লেনদেন (এসবিআই -6 এবং ইন্ডাসিন ব্যাংক -1) ১০০০০ ব্যক্তিগত ব্যবহারকারীর মাধ্যমে জাল আইআরসিটিসি আইডির মাধ্যমে টিকিট কাটার মূল্য ১৫৫২৭০৪ টাকা।
বেঅাইনি ভাবে ই টিকিট কাটার অপরাধে ও রেলওয়ে অাইন লঙ্ঘন করার জন্য গ্রেফতার করা হয়েছে এবং পাঁশকুড়ায় অারপিএফে কেস স্টাট হয়েছো। ধারাগুলি হল 1364/18 তারিখ 16.11.18, 143 রেলওয়ে আইন 1989।
মোট মূল্য ২২০৯৯৮৩ টাকা। পাঁশকুড়া খড়গপুর শাখার রেলের অারপিএফের ক্রাইম ব্রাঞ্চের অফিসার গণেশ চন্দ্র মাল্লিক এই অভিযানের নেতৃত্ব দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here