ঘাটালের বিদ্যাসাগর স্কুলের কাছে চক্রবর্তীদের কালী মন্দিরটি নাকি ঘাটালে সবচেয়ে পুরনো কালী মন্দির৷ এটি ১০০১ বঙ্গাব্দে নির্মাণ করেছিলেন সূর্যকান্ত ব্যানার্জি মহাশয় ৷ প্রথমে একটি বৃক্ষতলে মৃন্ময়ী মূর্তিতে এই পূজা শুরু হয়েছিল ৷ তখন ওই স্থানটিতে একটি শ্মশান ছিল সামনে ছিল শিলাবতী নদী ঘাট ,ঘাটটির নাম ছিল “বাগলি বার্ড”৷ শোনা যায় বর্ধমান ফারাজানা কি এই ব্যানার্জি পরিবারকে চক্রবর্তী উপাধি দেন ৷ তার পর থেকে এই ব্যানার্জী’রা তাঁদের পদবি হিসেবে ব্যানার্জির পরিবর্তে চক্রবর্তী ব্যবহার করতে শুরু করে৷ পরবর্তী কালে ১০৫৯ বঙ্গাব্দে এখানে মা কালির একটি পোক্তা মন্দির তৈরি করা হয৷ এরপর পুনরায় ১২৪৪ ও ১৩৮৭ বঙ্গাব্দে অর্থাৎ যে বছর ভয়াবহ বন্যা হয়েছিল সেবছর ৷ এই মন্দরে মুক্তকেশী দক্ষিণা কালী মায়ের পূজা করা হয় নিয়মিতভাবে ৷এ মন্দির বলিপ্রথাও রয়েছে ৷ মায়ের হাতের খড়্গটি বর্গি আমলের৷ এই বংশের সেবাইতদের তালিকা এই রকম :–সূর্যকান্ত ব্যানার্জি – চন্দ্রকান্ত ব্যানার্জি – ঈশ্বর চক্রবর্তী – বামাচরণ চক্রবর্তী – যতীন্দ্র চক্রবর্তী ও তাঁর দুই পুত্র দক্ষিণা চক্রবর্তী ও দুর্গাচরণ চক্রবর্তী ৷ বর্তমানে দক্ষিণা চক্রবর্তী-এর অবর্তমানে তাঁর পুত্ররা এবং দুর্গাচরণ চক্রবর্তী ও তাঁর পুত্ররা এই মন্দিরে সেবাইত ৷ ছবি ও তথ্য দেবপ্রসাদ চৌধুরী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here