ঘাটালে সুপার সাইক্লোন যশের সতর্কতায় মাইকিং নদীতে

আজ শিরোনামে আমার ঘাটাল

ঘাটাল নিউজ ডেস্কঃ অামফানের এক বছর ঘুরতে না ঘুরতেই সুপার সাইক্লোন যশের ভ্রুকুটি।
ইতিমধ্যে বাংলায় যশ চোখ রাঙাতে শুরু করেছে। এই ঘূর্ণিঝড় এখন শক্তি সঞ্চয় করছে।
সমুদ্রের ওপর দিয়ে প্রায় ৭০০কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে, শক্তি সঞ্চয় করে ল্যান্ড ফল করবে যশ।
জসের মোকাবিলায় প্রশাসন কোমর বেঁধে উঠে পড়ে লেগেছে। মানুষ কে সব রকম সহায়তা করার জন্য ব্লক এবং মহকুমা প্রশাসন প্রস্তুত।
মহকুমা এবং ব্লক প্রশাসনে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। বিডিও জয়েন্ট বিডিওর ফোন নাম্বার দেওয়া হয়েছে যাতে মানুষ যোগাযোগ করতে পারেন। এ ছাড়াও আরও বেশ কিছু জরুরী ফোন নাম্বার দেওয়া হয়েছে যোগাযোগের জন্য।এনডিআরএফ এবং ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট পুরোদমে প্রস্তুত বিপর্যয় মোকাবিলা করার জন্য।
একনজরে আপনারা জেনে নিন প্রশাসন কি কি ব্যবস্থা নিয়েছে।
ঘাটাল ব্লকের বিডিও সঞ্জীব দাস বলেন,যাদের কাঁচা বাড়ি তাদের উপযুক্ত আশ্রয় নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন। সমস্ত পঞ্চায়েতের হাই স্কুল এবং অন্যান্য স্কুলগুলিতে প্রশাসন এই কাজে ব্যবহার করবে। গর্ভবতী মহিলাদের আগে সরিয়ে নেওয়া হবে ।যারা কভিড আক্রান্ত তাদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হবে। সব পঞ্চায়েত কে উপযুক্ত পরিমাণ চাল দেওয়া হচ্ছে , আশ্রয়প্রাপ্ত মানুষদের খাবারের ব্যবস্থা করার জন্য। সর্বত্র প্রশাসন প্রচার করছে, যাদের কাঁচা বাড়ি সেই বাড়ি থেকে কাছাকাছি সরকারিভাবে নির্ধারিত আশ্রয়স্থান গুলি উঠে আসতে।
এছাড়াও ট্রিপল শুকনো খাবার, যেমন মুড়ি চিঁড়ের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রেখেছে প্রশাসন। গ্রামে সাঁকোগুলির উপর বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে। ঝড়ে গাছ উপড়ে পড়লে যাতে গাছগুলিকে দ্রুত সরিয়ে নেওয়া যায় তার ব্যবস্থা ও রাখছে প্রশাসন।
যেহেতু করোনা পরিস্থিতি ,এই কারণে ফ্লাড শেল্টার গুলিতে লোকজন যখন থাকবেন, তখন স্বাস্থ্যের দিক নজরে রাখা হবে বলে প্রশাসন জানিয়েছে ।সে ক্ষেত্রে মাস্ক-স্যানিটাইজার, দূরত্ব এগুলি যাতে মানা হয় তা দেখা হবে। করোণা পরিস্থিতি মাথায় রেখেই যশের মোকাবিলায় মানুষের সহায়তা নিয়ে প্রস্তুত রয়েছে প্রশাসন।
ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি দিলীপ মাজি বলেন, প্রশাসন সহ পঞ্চায়েত প্রস্তুত আছে বিপর্যয় মোকাবিলা করার জন্য।

Ghatal News