ঘাটালে পরিবহন কর্মীদের টিকা করন শুরু হল :

কোভিড সংক্রমনে রাশ টানার জন্য টিকাকরণ জরুরী।
এই বিষয়টি মাথায় রেখে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবহন কর্মীদের টিকাকরণের ব্যবস্থা করেছেন।
রাজ্যে পূর্ণ লকডাউন না হলেও লকডাউন এর মতো পরিস্থিতি চলছে। মানুষের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। বাজার হাট নির্দিষ্ট সময়ের জন্য খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি পরিবহন চালু আছে। তাই পরিবহন কর্মীদের নিরাপত্তার জন্য মুখ্যমন্ত্রী তাদের টিকাকরণের ব্যবস্থা করেছেন।
১৩ মে বৃহস্পতিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার পরিবহন কর্মীদের টিকাকরণ শুরু হলো ঘাটালে। ৫ নম্বর ওয়ার্ডের পুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে টিকাকরণ শুরু হয়। সোম ,বুধ এবং শুক্র বার ১৮ থেকে ৪৪ বছর পর্যন্ত এবং বাকি দিনে ৪৪ বছরের বেশি বয়সের পরিবহন কর্মীদের টিকাকরণ হবে।
এই বিষয়ে ঘাটাল মহকুমার এ আর টি ও জয়দ্রত সাহা বলেন, পরিবহন কর্মীদের টিকা করনের জন্য উপযুক্ত নথি দেখাতে হবে। যেমন ড্রাইভার দের জন্য ড্রাইভিং লাইসেন্স ,কনট্রাক্টরদের জন্য লাইসেন্স থাকা আবশ্যক । তার সাথে সবক্ষেত্রে আধার কার্ড নথি হিসাবে দেখাতে হবে।
যারা খালাসী তারা কিভাবে টিকা পাবেন সেই বিষয়ে এখনো কোন গাইডলাইন আসেনি বলে এআরটিও বলেন। ঘাটাল মহকুমার এসিএমওএইচ বলেন, পরিবহন কর্মীদের শুরু হল টিকাকরন।এরপর পুরসভার হকারদেরও টিকাকরন করা হবে।
রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তে পরিবহন কর্মীরা ও বাস মালিক সংগঠনের নেতারা মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।