করোনা আক্রান্ত হয়ে শহীদ হলেন সবং থানার মেজবাবু অতনু প্রামানিক l আটত্রিশ বছর বয়সী এই করোনা যোদ্ধার মঙ্গলবার ভোরে হাওড়া জেলার নারায়নী হাসপাতালে মৃত্যু হয় বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে l সোমবার তাঁকে শালবনি কোভিড হাসপাতাল থেকে নারায়নী হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল l জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সবং গ্রামীণ হাসপাতালে পাঁচ সেপ্টম্বর  অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ওই পুলিশ অফিসারের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ায় তাকে ডেবরা সেফ হোমে ভর্তি করা হয় l কিন্তু তিন চার দিন তার জ্বর না কমায় সাত সেপ্টেম্বর শালবনি  হাসপাতলে নিয়ে এসে চিকিৎসা শুরু হয় l সরিয়ে নেওয়া হয় আই সি ইউ তে l গতকাল সোমবার বিকেল থেকে ওই পুলিশ আধিকারিকের শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হতে থাকায় তিনি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছিলেন না l এরপর সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাওড়া নারায়নী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় l পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, সুগারের প্রকোপ থাকায় ওই পুলিশ আধিকারিক নিয়মিত ওষুধ খেতেন l তাই কো মরবিডিটিই বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল l জানা গেছে, সবং থানাতে বড়বাবু সুব্রত বিশ্বাস সহ কুড়ি জনেরও বেশি কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন l তিন দিন আগে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন বড়বাবু l সবং থানার অাধিকারীকের অতনু প্রামানিকের মৃত্যুতে জেলা পুলিশের নির্দেশে প্রতিটি থানায় তাঁর ছবিতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সমস্ত পুলিশ কর্মী বৃন্দ।রামজীবনপুর ফাঁড়িতে দায়িত্ব প্রাপ্ত অাধিকারীক রাম অাশিস সিং অতনু বাবুরর ছবিতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।