সিআইডির জালে প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষের দেহরক্ষী সুজিত মণ্ডল৷ গোপন অভিযান চালিয়ে দিল্লির মালব্যনগর থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি আধিকারিকদের একটি দল৷ দীর্ঘদিন ধরেই ফেরার ছিলেন ধৃত সুজিত মণ্ডল৷ তাঁর বিরুদ্ধে জারি হয়েছিল লুকআউট নোটিশ৷ সূত্রের খবর, কয়েকদিন আগে সিআইডি কাছে খবর আসে, দিল্লির মালব্যনগরের একটি বাড়িতে আত্মগোপন করে রয়েছেন সুজিত৷ সেইমতো শুক্রবার সেখানে গোপন অভিযান চালান সিআইডি অফিসাররা এবং ওই বাড়ি থেকেই তাঁকে পাকড়াও করেন তাঁরা৷ সুজিত ধরা পড়লেও এখনও পলাতক রয়েছেন আর্থিক তছরুপ ও তোলাবাজির একাধিক মামলায় অভিযুক্ত প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষ৷ সোনার বিনিময়ে টাকা দ্বিগুণ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে দাসপুরের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর সঙ্গে প্রতারণা করার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে৷

প্রসঙ্গত, একসময়ে এ রাজ্যে দাপুটে আইপিএস অফিসার ছিলেন ভারতী ঘোষ। তাঁকে পছন্দ করতেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাঘ্যায়। কিন্তু, শেষের দিকে ভারতীর কাজকর্মের ক্ষোভ জমছিল পুলিশমহলে। এই মহিলা আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা পড়েছিল নবান্নে। গত বছরের মাঝমাঝি ভারতী ঘোষকে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ পদে বদলি করে দেয় সরকার। পদত্যাগ করেন তিনি। একদা মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ এই আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তি ও তোলাবাজির অভিযোগে তদন্ত করছে সিআইডি। আগেই ভারতী ঘোষের স্বামী এমভি রাজুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তির মামলায় নাম জড়িয়েছে তাঁরও। অাজ সুজিত মন্ডলকে ঘাটাল অাদালতে তোলা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here