ডেঙ্গু নিয়ে প্রচারই সার
মশার আঁতুরঘর ঘাটাল ১৬ নং ওয়ার্ড
ঘাটাল শহরের মধ্যস্থল ১৬ নং ওয়ার্ড রাইমনি রোড সত্যজিৎ রায় মুক্ত মঞ্চ লাগোয়া এলাকায় একটি কালভার্টের তলায় মশায় আঁতুরঘরে পরিণত হয়েছে।এলাকার সমস্ত প্যাথলজিকাল বর্জ্য,প্লাস্টিক সহ বিভিন্ন আবর্জনা ভর্তী।বদ্ধ জলে মশার ডিম তো আছেই তার সাথে ভন ভন করছে মশার দল।ডেঙ্গু নিয়ে প্রচারের শেষ নেই কিন্তু মশা জন্মানোর উৎসগুলির প্রতি নজর নেই ঘাটাল পৌরসভার।মশা মারার তেল ছড়ানোর পাশাপাশি মশার আঁতুরঘর ধ্বংস করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।ট্র্যাডিশন অনুযায়ী মাঝে মাঝে ব্লিচিং ছড়ায় ঘাটাল পৌরসভা কর্তৃপক্ষ।ব্লিচিং এ মশা মরেও না আর লার্ভাও ধ্বংস হয় না।পৌরসভার তরফে মশা মারার তেল ছড়ানো হলেও মশা জন্মানোর উৎসগুলির প্রতি নজর রাখা হয় না।এর কারন কি পৌরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজনের মশা বাহিত রোগ ও স্বাস্থ্য সমন্ধে ধারনার অভাব? স্বাস্থ্য কমিটিতে জীববিদ্যা নিয়ে লোকজন থাকলে কাজ করতে সুবিধা হত। সামনেই ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলারের কার্যালয় বিষয়টি তারও নজরে আসা উচিত।
এ ব্যাপারে পৌরপ্রধান বিভাস ঘোষ বলেন ঘাটাল পৌরসভা সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করেছে।স্বচ্ছতার জন্য আমাদের কর্মীরা বাড়ি বাড়ি প্রচার করছে।মশার ওষুধ ছড়ানো হচ্ছে।যদি এরকম অপরিস্কার নর্দমা থাকে তাহলে আমরা পূজোর আগেই তা পরিস্কার করার ব্যবস্থা নিচ্ছি।অবিলম্বে এই নর্দমার জঞ্জাল পরিস্কার করা ও মশার আতুঁরঘর ধ্বংস করার দাবী জানান এলাকাবাসীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here