২ সেপ্টেম্বর ,বুধবার ঘাটালে কোভিড হাসপাতাল উদ্বোধন হল। বৃহস্পতিবার থেকে ঘাটাল মহকুমা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা শুরু হবে। হাসপাতালের দুটি ভবনে করোনা রোগীদের চিকিৎসা হবে। শয্যা সংখ্যা ৮০। এদিন করণা ওয়ার্ডেরএর উদ্বোধন করেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা শাসক ডক্টর রশ্মি কমল এবং পুলিশ সুপার দিনেশ কুমার।
উদ্বোধন করে জেলাশাসক বলেন জেলায় করনা চিকিৎসার জন্য তিনটে বড় হাসপাতাল আছে। এর সাথে ঘাটালে ৮০ শয্যার করণা ওয়ার্ড চালু হলো। বিভিন্ন ব্লকে সেফ হোম চালু হবে কারণ স্থানীয় মানুষ উপকৃত হবেন ।উপসর্গহীন দের এখানে রাখা হবে, যাদের উপসর্গ আছে তারা হাসপাতলে ভর্তি হবেন ।জেলায় এই মুহূর্তে ১০০০ করোনা রোগীর চিকিৎসার পরিসেবা দেয়া যেতে পারে বলে জেলাশাসক বলেন ।

এদিন ছিলেন মহকুমা শাসক অসীম পাল, জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাfক্তার নিমাই চন্দ্র মন্ডল, বি এম ও এইচ এবং হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত সুপার ডাক্তার মনোজিৎ বিশ্বাস, উপ মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাক্তার সৌম্য শঙ্কর সারেঙ্গী ,এসডিপিও অগ্নিশ্বর চৌধুরী, বিধায়ক শঙ্কর দলুই জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ শ্যাম পদ পাত্র,পঞ্চায়েত সমিতির স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ পঞ্চানন মন্ডল সহ অন্যান্যরা ।হাসপাতালের পুরানো ভবনে ত্রিশটি শয্যা রাখা হয়েছে করণা যোদ্ধা তথা চিকিৎসক, পুলিশ স্বাস্থ্যকর্মী, আশা কর্মীদের জন্য । পুরনো ফিমেল ওয়ার্ডে পঞ্চাশটি শয্যা রাখা হয়েছে অন্যান্য করণা আক্রান্তদের জন্য। উপসর্গহীন দেরও চিকিৎসা এখানে হবে তবে আইসিইউ ইউনিট নেই ।উল্লেখ্য ঘাটাল মহাকুমা তে করোনা সংক্রামিত রোগী প্রচুর মিলেছে। রোগীর চিকিৎসা সুষ্ঠুভাবে হওয়া এবং চাপ কমানোর জন্য ঘাটাল হাসপাতলে করোনা ওয়ার্ড চালু হলো ।শালবনি, মেদিনীপুর মেডিকেল ও আয়ুস এর পর ঘাটালে করণা ওয়ার্ড চালু হল। এর ফলে করোনা রোগীদের চিকিৎসার সুবিধা হবে ,এর জন্য অতিরিক্ত ৮ জন চিকিৎসক এবং ১৬ জন নার্স নিযুক্ত থাকবেন।