ঘাটাল নিউজ ডেস্ক, ১৪ এপ্রিল : বিজেপির হাতে মানুষ , মানবতা কোনোটাই সুরক্ষিত নয়। বিপন্ন গনত্রন্ত্র , রাষ্ট্রবাদ , সংবিধান বিজেপির হাতে দেশ , সেনাবাহিনী , মহাকাশ থেকে ধর্ম কোনোটাই সুরক্ষিত নয়। তাই এই বিজেপি আর নয়, এদিন খড়্গপুরের গোপালীতে কর্মিসভায় আওয়াজ তুললেন মেদিনীপুরের তৃণমূল প্রার্থী ডাঃ মানস ভুইঁয়া। মোদী ও মমমতার তুলনা টেনে বলেন , ‘ মমতা দেশ রক্ষার কথা বলেন, সকলকে নিয়ে চলার কথা বলেন। ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলেন। আর মোদী দেশ ভাঙার কথা বলেন। রামের সঙ্গে রহিমের বিভেদের কথা বলেন। নিজের মতের লোককে নিয়ে চলার কথা বলেন। তাঁর বিরুদ্ধে প্রার্থী হওয়া বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে তাঁর তীক্ষ্ণ শ্লেষ ,’ যে দল ৫ বছর ধরে বেকারের হাতে কাজ দিতে পারে না , আচ্ছে দিনের সুফল দিতে পারে না , সেই দলের রাজ্য সভাপতি কিশোর , যুবক , তরুণদের হাতে অস্ত্র তুলে নিতে প্রছন্ন মদত দিচ্ছেন। এটা ভাবা যায় ? ‘
ধর্মকে রাজনীতির সঙ্গে মোড়কে দিলীপ ঘোষ ভোট বৈতরণী পার হতে চাইছেন জানিয়ে বলেন , ‘ যতই উনি অস্ত্রের ঝঙ্কার দেখান , যতই উনি হুঙ্কার দিন , ইভিএমে বোতাম টেপার আগে যুবক , তরুণদের মনে পড়বেই এই বিজেপি তাঁদের জন্য কিছুই করেনি। ধর্মের শুড়শুড়ি আর যুদ্ধের জিগির তুলে ধরেছে। বাংলার রাজনীতিতে এসব অচল। অন্য রাজ্যেও আর চলেছে না। ‘
রবিবার তাঁকে বলতে শোনা যায় , ‘ এটা পঞ্চায়েত বা পুরসভার ভোট নয়। এটা দেশ রক্ষার ভোট। নতুন ভারত গড়ার ভোট। ‘
দেশ চালানো আগ্রাসী বিজেপিকে পদ্ম ফুলের চাষীর আখ্যা দিয়ে অভিযোগ করেন , ‘ যে দল কোনোদিন স্বাধীনতা সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেনি , যে দল কোনো দিন রাম আর রহিমকে এক আসনে বসতে দেয়নি , যে দল দেশের অর্থনীতি , কৃষি ব্যবস্থা , সেনাবাহিনীর মনোবল ভেঙে দিয়েছে সেই দল বাংলায় রামের নামে ভোট চায় কি করে ? আসন বাড়ানোর স্বপ্ন দেখেই বা কি করে ? রবিবার দাবদাহ উপেক্ষা করেই সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত খড়্গপুর বিধানসভার বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় প্রচার সারলেন মেদিনীপুর কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী ডাঃ মানস ভুইঁয়া। ছিলেন বিধায়ক দীনেন রায় , তৃণমূল নেতা নির্মল ঘোষকে সঙ্গে নিয়ে তিনি একের পর এক এলাকায় চষে বেড়ালেন | গ্রামের প্রত্যন্ত এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে কর্মী , সমর্থকদের সঙ্গে গড়ে তুললেন নিবিড় সম্পর্ক | কোথাও লস্যি , কোথাও শরবৎ , কোথাও ডাবের জল খেলেন। রূপনারায়ণপুর , জফলা , গোপালী , হীরাডি , কলাইকুণ্ডা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বিভিন্ন গ্রামে ঘোরেন।
এদিন তিনি বিজেপির বিভেদের রাজনীতির ও ধর্ম নিয়ে রাজনীতির বিরুদ্ধে সরব হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here